Home » Blog » শিক্ষা » একাদশে ভর্তিতে প্রথম পাঁচ ঘণ্টায় ৪৭ হাজার আবেদন

একাদশে ভর্তিতে প্রথম পাঁচ ঘণ্টায় ৪৭ হাজার আবেদন


একাদশে ভর্তিতে প্রথম পাঁচ ঘণ্টায় অনলাইন ও এসএমএসের মাধ্যমে ৪৭ হাজার ৮৭০টি আবেদন জমা পড়েছে। মোট ৩১ হাজার ২৫৯ জন আবেদনকারী এই আবেদন করেছেন বলে ঢাকা শিক্ষা বোর্ড সূত্রে নিশ্চিত হওয়া গেছে। আজ রবিবার বেলা ২টা থেকে অনলাইনে ভর্তি আবেদন গ্রহণ শুরু হয়। আগামী ২৪ মে পর্যন্ত আবেদন করতে পারবে শিক্ষার্থীরা।

আজ বেলা ১২টায় ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে ভর্তি কার্যক্রম উদ্বোধন করা হয়। এতে প্রধান অতিথি ছিলেন শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব (কলেজ) ড. মোল্লা জালাল উদ্দিন। ঢাকা শিক্ষা বোর্ডে চেয়ারম্যান প্রফেসর মু. জিয়াউল হকের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন মাদ্রাসা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান প্রফেসর এ কে এম ছায়েফ উল্লাহ, ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সচিব শাহেদুল খবির চৌধুরীসহ বোর্ডের উর্ধ্বতন কর্মকর্তারা।

‘একাদশ শ্রেণির ভর্তি নীতিমালা-২০১৮’ অনুযায়ী, আটটি সাধারণ বোর্ড, মাদ্রাসা ও কারিগরি বোর্ড থেকে ২০১৬, ২০১৭ ও ২০১৮ সালে উত্তীর্ণরা একাদশ শ্রেণিতে ভর্তি হতে পারবে। আর উন্মুক্ত বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ২০১৫, ২০১৬ ও ২০১৭ সালে উত্তীর্ণরা ভর্তির জন্য আবেদন করতে পারবে।

জানা যায়, পুনঃনিরীক্ষণে যাদের ফল পরিবর্তন হবে তারা ৫ থেকে ৬ জুন পর্যন্ত আবেদন করতে পারবে। প্রথম পর্যায়ে নির্বাচিতদের ফল প্রকাশ করা হবে ১০ জুন, দ্বিতীয় পর্যায়ে ২১ জুন ও তৃতীয় পর্যায়ে ২৫ জুন। ২৭ থেকে ৩০ জুন শিক্ষার্থী ভর্তি শেষে আগামী ১ জুলাই ক্লাস শুরম্ন হবে।

অনলাইনে ১৫০ টাকা ফি জমা দিয়ে সর্বনিম্ন ৫টি এবং সর্বোচ্চ ১০টি কলেজে পছন্দক্রমের ভিত্তিতে আবেদন করা যাবে। আর এসএমএসে প্রতি কলেজের জন্য ফি দিতে হবে ১২০ টাকা। জিপিএ-৫ পাওয়া শিক্ষার্থীদের ক্ষেত্রে সর্বমোট প্রাপ্ত নম্বরের ভিত্তিতে মেধাক্রম নির্ধারণ করা হবে।

বিজ্ঞান শাখা থেকে উত্তীর্ণরা যে কোনো বিভাগে ভর্তি হতে পারবে। মানবিক শাখা থেকে উত্তীর্নরা মানবিকের পাশাপাশি ব্যবসায় শিক্ষা শাখায় ভর্তি হতে পারবে। ব্যবসায় শিক্ষায় শিক্ষার্থীরা ব্যবসায় শিক্ষা ও মানবিক বিভাগে ভর্তি হতে পারবে।

মন্তব্য করুন

এখানে মন্তব্য করুন